0

নন ডিজাইনারদের কাছে ক্যানভা কেন এতো জনপ্রিয় ?

ফটো এডিটিং ওয়েবসাইটগুলোর মধ্যে ক্যানভা অন্যতম জনপ্রিয় একটি ওয়েবসাইট যার সারাবিশ্বে ব্যবহারকারীর সংখ্যা এখন প্রায় ১০ মিলিয়নেরও বেশি।২০১২ সালে প্রতিষ্ঠিত ক্যানভা একটি অস্ট্রেলিয়ান-ভিত্তিক গ্রাফিক ডিজাইন প্ল্যাটফর্ম যার মাধ্যমে আপনি দ্রুত এবং সহজে  গ্রাফিক ডিজাইনের অনেক কাজ যেমন, আপনার পোর্টফোলিও, নিউজলেটার, পোস্টার, ব্রোশিওর, মেন্যু, লোগো এবং আরও অনেক কিছু তৈরী করতে পারবেন।মোবাইল এবং কম্পিউটার দু'জায়গাতেই এটি ব্যবহার করতে পারবেন। ক্যানভাতে রয়েছে অসংখ্য টেমপ্লেট ও প্রয়োজনীয় সব ধরনের ইলিমেন্ট যার মাধ্যমে খুব সহজেই আপনার পছন্দের ডিজাইন করতে পারবেন।তবে আপনার ডিজাইন সুন্দর হওয়া নির্ভর করে আপনার সৃজনশীলতার উপর।ক্যানভা  ফ্রি এবং প্রিমিয়াম দুই ভাবেই ব্যবহার করা যায়, এছাড়া গুগোল প্লে স্টোরে এর অ্যাপস‌ও পাওয়া যায়।


ক্যানভা ব্যবহারের সুবিধা: 

  • ক্যানভা মূলত নন-ডিজাইনারদের জন্য, এতে অ্যাডোবি ফটোশপের মতো অনেকগুলি ফিচার রয়েছে।

  • আপনি Facebook, Instagram, Pinterest, YouTube এর মতো সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলির মার্কেটিং করার জন্য বিভিন্ন ব্যানার, পোস্টের  তৈরি করতে ক্যানভা  ব্যবহার করতে পারবেন।

  • ক্যানভায় সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টগুলোতে সংযুক্ত হয়ে সরাসরি আপনার ডিজাইন প্রকাশ করতে পারবেন।

  • আপনার বিজনেসের জন্যে প্রয়োজনীয় লোগো, ব্যানার, পোস্টার খুব সহজেই তৈরী করতে পারবেন। 

  • যারা কনটেন্ট রাইটিং বা ব্লগ লেখেন, তারা নিজেরাই খুব সহজে ব্যানার তৈরী করতে পারবেন। 

  • ক্যানভাতে রয়েছে সিভি তৈরীর অনেক টেমপ্লেট। যার মাধ্যমে আপনি আপনার প্রফেশনাল সিভি তৈরী করে নিতে পারবেন।  

  • ক্যানভা এর মাধ্যমে সহজেই বানাতে পারবেন প্রফেশনাল লেভেলের প্রেজেন্টেশন।  


এবার আসুন জেনে নেই কিভাবে সহজ উপায়ে ক্যানভার মাধ্যমে ডিজাইন তৈরি করবেনঃ


বিভিন্ন ক্যাটেগরির জন্য ক্যানভায় নির্দিষ্ট এবং পেশাদার টেমপ্লেটের সংগ্রহ রয়েছে।ক্যাটেগরিগুলোর মধ্যে সোশ্যাল  মিডিয়া, ডকুমেন্টস,প্রেজেন্টেশান, পোস্টার, এডস, মার্কেটিং, বিভিন্ন ইভেন্ট সহ আরও বিভিন্ন ক্যাটেগরির সৃজনশীল টেমপ্লেট পাওয়া যাবে।

  • প্রথমত, আপনি যে ক্যাটেগরিতে কাজ করবেন সেখান থেকে আপনার পছন্দা অনুযায়ী একটি টেমপ্লেট খুঁজে বের করবেন। 

  • আপনার ধারণার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ কিছুতে টেমপ্লেটগুলি পরিবর্তন করতে পারবেন। সেটি হতে পারে নতুন কোনো ছবি সংযুক্ত করা, টেক্সট ফন্ট, কালার, ফিল্টার পরিবর্তন সহ আরও অনেক কিছু।

  • সাইড বার টুল ব্যবহার করে ব্যাকগ্রাউন্ড, ইমেজ, টেক্সট পরিবর্তন করার পাশাপাশি ক্লিপআর্ট, অডিও, ভিডিও পর্যন্ত যুক্ত করতে পারবেন।

  • এবার আপনি আপনার ডিজাইনগুলি সম্পন্ন করে, আপনার প্রয়োজনমত সঠিক ফাইল টাইপে সংরক্ষণ করুন।


এছাড়া ক্যানভা প্রিমিয়াম ব্যবহার করে আপনি নিচের সুবিধা গুলো পাবেনঃ


  • আপনার নির্দিষ্ট ব্র্যান্ড ফন্ট, বা আপনার ক্লায়েন্টদের ফন্ট আপলোড করে ব্যবহার করতে পারবেন।

  • এখন ডিজাইন করুন, ক্যানভা দিয়ে সরাসরি আপনার সোশ্যাল  মিডিয়া শিডিউল করে পরে পোস্ট করুন।

  • ক্যানভা প্রো তে আপনি টিম গঠন করে সদস্যদের যোগ করতে এবং তাদের জন্য নির্দিষ্ট কাজ এসাইন করতে পারবেন।

  • অতিরিক্ত অনেক ছবি, GIF, ইলাসট্রেশান এবং আরও অনেক টেমপ্লেটের অ্যাক্সেস, প্রতি ইমেজের জন্য আলাদাভাবে আপানাকে পেমেন্ট করতে হবে না।


সর্বশেষ, ক্যানভা ব্যবহার করে আপনি কখনোই একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনার হতে পারবেন না। তবে আপনি যদি একজন উদ্যোক্তা, একজন ব্লগার বা একজন সোশ্যাল মিডিয়া স্ট্র্যাটেজিস্ট হন অথবা আপনি যদি কোনো মার্কেটিং এজেন্সিতে কাজ করেন বা কোনো কম্পানিতে ব্র্যান্ডিং এর সাথে সাথে যুক্ত হন, তাহলে আপনি অবশ্যই এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হবেন যেখানে আপনাকে ক্রমাগত নতুন নতুন ব্লগ, সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট এবং ডিজাইনের পরিকল্পনা করতে হবে, সেক্ষেত্রে ক্যানভার ব্যবহার আপনাকে অল্প সময়ের মধ্যে মানসম্মত কাজ প্রদান করবে।


You may also like:

- কিভাবে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের জন্য একটি প্রফেশনাল ব্লগ লিখবেন?

- আপনার লিংকডইন প্রোফাইল যেভাবে প্রফেশনালি সাজাবেন

- কিভাবে হবেন একজন সফল ফ্রিল্যান্সার?

Shopping Cart

Loading...